আশ্চর্য ‍উল্কা

5.00 গড় রেটিং - 1 ভোট
বাড়তি নাম: Ascharya Ulka
সিরিজ: দুঃসাহসী টিনটিন সিরিজ
প্রকাশক: আনন্দ পাবলিশার্স
বিষয়: শিশু-কিশোর, কমিকস, নকশা ও ছবির গল্প, থ্রিলার ও অ্যাডভেঞ্চার, রহস্য
লেখক:
পৃষ্ঠাসমূহ: 66
আইএসবিএন: 8172158971
ভাষা: বাংলা
ধরণ: পিডিএফ
অনুবাদক: নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী

সময়টা গ্রীষ্মের মাঝামাঝি। অতিরিক্ত গরমে গায়ে কাপড় রাখাই দায়। এরকম সময়ে রাতের বেলা টিনটিন আকাশে লক্ষ্য করলো বিশাল একটা তারা। তারা যে পৃথীবি থেকে এত বড় দেখা যাবে এটা কখনোই কল্পনা করেনি টিনটিন। তাই বেশ উত্তেজনা অনুভব করতে লাগলো নিজের মাঝে। উত্তেজনা হয়তো আর একটু বাড়ানোর জন্য তারাটার আকার একটু একটু বাড়তে লাগলো। একটা সময় টিনটিনের মনে হলো তারাটা পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে। অনুমানের সত্যতা যাচাই করার জন্য টিনটিন ছুটলো মানমন্দিরে।

মানমন্দিরে না আসাটাই হয়তো ভালো ছিল। এখানে এসে টিনটিন যা শুনলো এবং নিজের চোখে আকাশের সেই তারাকে বড় দুরবীন দিয়ে দেখার পর যেন নিজের অজান্তেই আতকে উটলো। এতক্ষণ থেকে যেটাকে তারা ভেবে আসছিলো টিনটিন সেটা আসলে তারা নয়। বরং ভয়ঙ্কর এক মাকড়সা। এবং সেই মাকড়সা ধেসে আসছে পৃথিবীর দিকে যার ফলে আগামীকাল সকাল ৮ টা ১২ মিনিটে সেটার ধাক্কায় চূর্ণ বিচূর্ণ হয়ে যাবে পৃথিবী।

টিনটিন ভাবতেই পারছিলো না আগামীকাল তাকে এবং বাকী সবাইকে মরতে হবে। কিন্তু ভেবেও তো আর করার কিছু নেই। ভেবে কি আর পৃথিবীকে ধংসের হাত থেকে বাচা যাবে? যখন আর কোন উপায় নেই তখন টিনটিন ঘড়ির দিকে তাকিয় অপেক্ষা করতে লাগলো ভয়ঙ্কর এক সত্যের জন্য। মনে ক্ষীণ আশা। হয়তো পৃথিবী ধ্বংস হবে না। কিন্তু টিনটিনের ক্ষীণ আসা পূরন হলো না, সঠিক সময়েই প্রচন্ড এক ঝাকুনিতে কেপে উঠলো টিনটিনের পুরা রুম....."

কাহিনী এখানেই শেষ নয়, কারন আশ্চর্য উল্কা নিয়ে এখনো কিছুই বলিনি। যেটাকে আশ্চর্য উল্কা বলা হয়েছে সেটা আসলেই আশ্বর্য উল্কা। সেই উল্কা সংরক্ষণ করা গেলে বিজ্ঞানের অবিস্মরণীয় উন্নতি ঘটানো সম্ভব। মানব জাতির এই অভাবনীয় সাফল্যের স্বপ্ন এক নিমিষেই ভেঙে দিয়ে উল্কা পতন হলো সমুদ্রে। সমুদ্র থেকে তো আর উল্কা নিয়ে আসা যাবেনা, কিন্তু তারপরেও টিনটিনের চাওয়ায় বিশাল লঞ্চ সাজানো হলো, সেইসাথে শুরু হলো রোমাঞ্চকর অভিযান। আর সব অভিযানের মত এটাতেও আছে যথেষ্ট শত্রু। শত্রু দল চায়না টিনটিন দল উল্কা আগে পেয়ে যাক, আর তাই তারা বিভিন্ন রকম চতুরাতার আশ্চর্য নিতে লাগলো। এগুলোর থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন ছিলো কিন্তু টিনটিন একে একে সেগুলো থেকে পাশ কাটিয়ে যেতে লাগলো। কিন্তু তার মাথায় আকাশ ভেঙে পড়লো তখন, যখন জানতে পারলো তাদের থেকে ঠিক ২৫০ কিমি এগিয়ে আর একটা লঞ্চ উল্কার খোজে এগিয়েছে। তারমানে আর কোনভাবেই উল্কা জয় করা সম্ভব নয়। তবে ভেঙে পড়লো না টিনটিন। একবার যখন অভিযানে বের সে হয়েছে তখন জিতেই ফিরবে।

রিভিউস

আবশ্যিক তথ্যগুলো * দিয়ে চিহ্নিত করা। আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না।