অঘোরগঞ্জের ঘোরালো ব্যাপার

5.00 গড় রেটিং - 1 ভোট
বাড়তি নাম: Oghorgonjer Ghoralo Bepar
সিরিজ: অদ্ভুতুড়ে সিরিজ
প্রকাশক: আনন্দ পাবলিশার্স
বিষয়: শিশু-কিশোর, রম্য সাহিত্য
লেখক:
পৃষ্ঠাসমূহ: 100
আইএসবিএন: 9788177567106
ভাষা: বাংলা
ধরণ: পিডিএফ
শঙ্কাহরণ আর বিপদভঞ্জন দুই বন্ধু মিলে নদী থেকে একটা লাশ তুলল। পরে দেখা গেল লোকটা মরেনি। তারাতারি করে লোকটাকে নিয়ে তারা করালী ডাক্টারের বাড়ি গেল। করালীডাক্টার অদ্ভুত মানুষ। রোগীদের জোড় করে পথ্য গেলায়। না খেলে রোগীর গলাটিপে ধরে। লাঠি নিয়ে দৌড়ায়। জটেশ্বর অঘোরগঞ্জের নামকরা জ্যোতিষ। কিন্তু তার সব ভবিষৎবাণী উলটা হয়। কেউ যদি এসে বলে, পরীক্ষায় ফেল করব না পাশ করব? সে উত্তর দিল, না রে এবার তোর হবে না রে। একথা শুনে সে লাফাতে থাকে। এবং রেজাল্ট বেরুলে দেখা যায় সে লেটার নিয়ে পাশ করেছে। করালীডাক্টার এর সাথে জটেশ্বরের বিশ বছরের ঝগড়া। কিন্তু তাও জটেশ্বর প্রতিদিন করালীডাক্টারের বাড়ি এসে বসে থাকে। মৃগাঙ্ক ঘড়িয়ালের একটা নেশা হচ্ছে ঘড়ি কালেক্ট করা। তার কালেকশনে নানারকম ঘড়ি আছে। কোনও ঘড়ি তার পছন্দ হলে সেটার জন্য লাখ লাখ টাকাও খরচ করতে পারে সে। সেদিন তার বাড়ির বাগানে একটা ছেলেকে দেখলেন তিনি। ছেলেটা কথা বলতে পারে না। তার হাতে ছিল সুন্দর একটা ঘড়ি। মৃগাঙ্ক বাবুর পছন্দ হয়ে গেল ঘড়িটা। জোড় করে ঘড়ি নিতে গিয়ে বাধল বিপত্তি। ছেলেটা তিনতলার ছাদ থেকে লাফ দিয়ে নদিতে পড়ে গেল। পড়ার আগে একটা গুলি খেয়েছিল। লোকমুখে শোনা যাচ্ছে ছেলেটা নাকি করালীডাক্টারের বাড়িতে আছে। দুজন ষন্ডামার্কা লোক পাঠিয়ে দিলেন মৃগাঙ্ক ঘড়িয়াল। ছেলেটাকে খুন করে হাতের ঘড়িটা ছিনিয়ে আনতে বলে দিলেন। ছেলেটা কে, কোত্থেকে আসল তা কেউ জানেনা। কিন্তু করালীডাক্টারের বউ আর করালীডাক্টার জানতে পারল সেটা। ছেলেটা কথা বলল তাদের সাথে। কিন্তু অন্য উপায়ে।

রিভিউস

আবশ্যিক তথ্যগুলো * দিয়ে চিহ্নিত করা। আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশ করা হবে না।