আহসান হাবীব

আহসান হাবীব

ড্যাড অফ বাংলাদেশী কার্টুন’ বা ‘গ্র্যান্ডফাদার অফ জোকস’সহ আরো নানা উপাধিতে ভূষিত জনপ্রিয় কার্টুনিস্ট আহসান হাবীব এর জন্ম ১৯৫৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ নভেম্বর সিলেট অঞ্চলে। মা আয়েশা ফয়েজ ছিলেন একজন গৃহিণী ও বাবা ফয়জুর রহমান আহমদ একজন প্রাক্তন পুলিশ কর্মকর্তা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা। বাবার সরকারি চাকুরির সুবাদে বগুড়া, চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, পিরোজপুর, দিনাজপুর, মোহনগঞ্জসহ আরও কিছু জায়গায় তাঁর শৈশব কাটে, এমনকি পড়াশোনাও করেছেন আটটি ভিন্ন স্কুলে। বাংলাদেশের প্রথম বিজ্ঞান কল্পকাহিনী ম্যাগাজিন পত্রিকা ‘মৌলিক’ ১৯৯৯ সালে আহসান হাবীব ও হাসান খুরশিদ রুমির হাত ধরেই প্রকাশিত হয়েছিল। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভূগোলে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী নিয়ে পাস করার পর থেকে তিন দশক ধরে তিনি ‘উন্মাদ’ পত্রিকার সাথে জড়িত আছেন, যে পত্রিকাকে তাঁর খ্যাতির মূল উৎস হিসেবে চিহ্নিত করা যায় । উন্মাদ পত্রিকা সম্পাদনা ছাড়াও বর্তমানে ‘International Journal Of Comic Art’ কার্টুন পত্রিকার বাংলাদেশী এডিটরের দায়িত্বও পালন করছেন এবং পাশাপাশি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এর মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড ক্রিয়েটিভ টেকনোলজি বিভাগে ২০১৫ সালে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। আহসান হাবীব (কার্টুনিস্ট) এর বই সমূহ এর তালিকায় রয়েছে ‘রাত বারোটার পরের জোকস’, ‘ফোর টুয়েন্টি ফোর আওয়ার জোকস’, ‘জোকস সমগ্র’, ‘৯৯৯ জোকস একটা ফাও’, ‘১০০১টা জোকস ১টা মিসিং’, ‘ভ্যালেন্টাইন জোকস’, ‘জিনি জোকস’ ইত্যাদি। জোকস এর বই ছাড়াও তিনি লিখেছেন নন-ফিকশন, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী, গ্রাফিক নোভেল ও নাটক। সেসকল ধারায় আহসান হাবীব (কার্টুনিস্ট) এর বই সমগ্র এর মাঝে আছে ‘আব্‌জাব্‌’, ‘লিখতে লিখতে লেখক’, ‘বাবা যখন এক্কেবারে ছোট’, ‘ইশকুল টাইম’, ‘অফিস টাইম’, ‘যাহা বলিব মিথ্যা বলিব’, ‘ভূত যখন Ghost’, ‘সায়েন্স ফ্রিকশন’, ‘বাছাই ভূত’, ‘পাওয়েল ব্রুনস্কির বিচার’, ‘সায়েন্স ফিকশন সংকলন মৌলিক’, ‘সূর্য যেখানে নীল’, ‘হনন’, ‘এবং অতঃপর’, ‘হাইপোথিসিস’, ‘একটি আদর্শ মেস (ধূমপান মুক্ত)’ (সিরিয়াল), ‘আলিবাবা একচল্লিশ চোর’, ‘মিথস্ক্রিয়া’, ‘কাসাহারা’, ‘ভয়’ প্রভৃতি। তাঁর পুরস্কারের ঝুলিতে রয়েছে তুরস্ক থেকে নাসিরুদ্দিন হোজ্জা প্রতিযোগিতা, হাভানা প্রতিযোগিতাসহ আরও নানা জায়গার অসংখ্য পুরস্কার।
মোট 1 বই পাওয়া গেছে
একটি প্রায় ভয়ঙ্কর গল্প
2013
জেনিফার মেয়েটার কারনেই অদৃশ্য হওয়ার পোকা মাথায় ঢুকে মুশফিকের। বাদলের পরামর্শে দেখা করে...
প্রতি পৃষ্ঠায় বই: